এইমাত্র পাওয়া

প্রকাশিত সংবাদের হামিদের প্রতিবাদ

জুলাই ১০, ২০১৮

দৈনিক ‘রূপসী গ্রাম’ ও ‘টেকনাফ নিউজ৭১’ অনলাইন পত্রিকায় ‘টেকনাফে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সোর্স পরিচয়ে রামরাজত্ব’ এবং ‘টেকনাফে রহমান ড্রাইভারের জমি দখলের অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত শীর্ষক সংবাদখানা আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। সংবাদে বিভিন্ন মনগড়া, কল্পনাপ্রসূত তথ্য উপাত্য দিয়ে আমার প্রতিপক্ষ মিথ্যাচারের আশ্রয় নিয়ে নিজেকে সাধুসন্যাসী বানিয়েছে। প্রকৃতার্থে নিজের অপকর্ম আড়াল করে “উধুর পিন্ডি বুধোরঘাড়ে” ছাপিয়ে প্রতিপক্ষ ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করাই হচ্ছে তার একমাত্র উদ্দেশ্য। মূলতঃ ড্রাইভার আব্দুর রহমান একজন পেশাদার মাদক ব্যবসাায়ী। অতীতে ৫শত টাকা আয়করা তার জন্য কষ্টকর হতো। বর্তমানে সে কয়েক কোটি টাকার মালিক । প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে নাইট্যং পাড়ার দৃশ্যমান রাজ-প্রাসাদ পাকা বাড়ী নির্মাণ করে সে এবং তার পরিবার পরিজন রাজার হালতে জীবন যাপন করছে। রাজপ্রাসাদের ভিতর বিভিন্ন কারুকার্য্য করে সে দৃশ্যপট পাল্টে দিয়েছে। যাহা না দেখলে বিশ্বাস করা যাবেনা। এলাকায় ড্রাইভার রহমানের মাদকের ভয়াবহতা ফাঁস এবং সে একের পর এক আইন শৃংখলা বাহিনীর হাতে আটকের পর থেকে আমরা তার জন্য কাল হলাম। অতীতে সে ইয়াবাসহ পিকআপ গাড়ীসহ আটক হয় পটিয়া থানার পুলিশের কাছে। বর্তমানে তার ২টি পিকআপ গাড়ী রয়েছে। এর মধ্যে ১টি গাড়ী পটিয়া থানায় জব্দ। আরেকটির সে নিজেই চালক। গাড়ীতে যোগান সৃষ্টি করে ইয়াবা পাচার অব্যাহত রেখেছে। জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে পক্ষ ও বিপক্ষের মধ্যে হামলা ও পাল্টা হামলা নিয়ে থানায় অভিযোগ থাকলেও প্রতিপক্ষ মাদকের কালোটাকা নিয়ে তার স্ত্রীকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচরণে উঠেপড়ে লেগেছে।
মূলতঃ এ জমি ভিলেজারী জায়গা। তার মাতা আনোয়ারা বেগম অন্যান্য ছেলেদের অজান্তে ছোট ছেলে হামিদকে ২০ কড়া জমি দান করে। পরে এ দানকৃত ২০ কড়া বসতভিটার জায়গা ২০১৪ সালে তার মাতা আমাকে ষ্ট্যাম্পমূলে বিক্রি করে। যাহা আমার দখলে রয়েছে। এ নিয়ে গত ৩ জুলাই প্রতিপক্ষ আব্দুর রহমান গং রাত ১০ টায় আমার বাড়ীতে হামলা চালায় এবং এতে কয়েকজন আহত হয়। হামলার পর প্রতিপক্ষের লোকেরা বলেন, মিথ্যা মামলা জড়িয়ে দিবে মর্মে নানা ধরনের হুমকি-ধমকি দিয়ে চলে যান। পরে আমার স্ত্রী লায়লা বেগম নিজে বাদী হয়ে ড্রাইভার আব্দুর রহমানকে অভিযুক্ত করে ২/৩ জন অজ্ঞাত নামাকে আসামী করে টেকনাফ মডেল থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগের পর থেকে প্রতিপক্ষ আমার বিরুদ্ধে নানা ধরনের ষড়যন্ত্র ও মিথ্যা অপচার চালিয়ে যাচ্ছে। এসব অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আমার অনুরোধ রইল। কাজেই প্রকাশিত সংবাদে সত্যের লেশ মাত্র নেই। অতএব আমি উক্ত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।
প্রতিবাদকারী
মোঃ হামিদ হোসাইন
নাইট্যং পাড়া
টেকনাফ পৌরসভা।

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

শিরোনাম :