এইমাত্র পাওয়া

যে কোনো মূল্যে ঐক্য চান খালেদা জিয়া

সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৮

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘মিথ্যা ও সাজানো মামলায় দেশনেত্রী খালেদা জিয়া আজকে স্যাঁতস্যাঁতে কারাগারে আটক আছেন। তিনি কারাগারে থেকে আমাদের খবর পাঠিয়েছেন- যে কোনো মূল্যে জাতীয় ঐক্য তৈরি করে এই সরকারকে সরাতে হবে। আমার কি হবে না হবে জানি না।’
শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকালে মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নাগরিক সমাবেশে যোগ দিয়ে প্রধান বক্তা হিসেবে এ কথা বলেন তিনি।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশে যে দুঃশাসন চলছে, তা মানুষের আশা খান খান করে দিয়েছে। একদলীয় শাসনে নির্যাতিত হচ্ছে জনগণ। আর গণতন্ত্র রক্ষার আন্দোলন করতে গিয়ে আজকে খালেদা জিয়া কারাগারে।’
তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে বলে গেছেন- দেশকে বাঁচাতে হলে, স্বাধীনতা রক্ষা করতে হলে জাতীয় ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই। এই সরকারকে সরাতে হলে ঐক্যই হলো একমাত্র বিকল্প।’
বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এই সরকারকে যদি সরিয়ে দিতে না পারি এদেশে স্বাধীনতা থাকবে না। আসুন, ন্যূনতম দাবির ভিত্তিতে আন্দোলন শুরু করি। তাহলে খালেদা জিয়া মুক্তি পাবে, দেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে।’
ফখরুল বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যের প্রক্রিয়া আজকে এক ধাপ এগিয়ে গেছে। আশা করি, আগামী দিনে তাদের নেতৃত্বে আরও এগিয়ে যেতে পারবো।’
এর আগে, শনিবার বিকাল ৩টায় রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে শুরু হয় গণফোরাম নেতা কামাল হোসেনের উদ্যোগে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন যুক্তফ্রন্টের সভাপতি ও সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী।
সমাবেশের মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মওদুদ আহমদ, মোশাররফ হোসেন, মঈন খান। ২০ দলের নেতাদের মধ্যে ছিলেন বিজেপির আন্দালিব রহমান পার্থ, মাওলানা নুর হোসাইন কাসেমী, আহমদ আবদুল কাদের, মুস্তাফিজুর রহমান ইরান।
নাগরিক সমাজের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন, জাফরুল্লাহ চৌধুরী।
ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের মধ্যে ছিলেন মাহমুদুর রহমান মান্না, আ স ম আবদুর রব, সুলতান মনসুর প্রমুখ।

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« নভে    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  

শিরোনাম :